Forex Article

মানি ম্যানেজমেন্ট উন্নয়নের ৬টি গুরুত্বপূর্ণ ধাপ
Jun 15 2019

মানি ম্যানেজমেন্ট উন্নয়নের ৬টি গুরুত্বপূর্ণ ধাপ

Created by: FxsuccessBD | ট্রেডিং টিপস্ |

5.0 (8 reviews)

দীর্ঘদিন ধরে ফরেক্স মার্কেটে সফলতার সাথে টিকে আছেন এমন কিছু ট্রেডারের কাছে যদি প্রশ্ন করা হয়, ট্রেডিংয়ের ক্ষেত্রে সর্বাধিক গুরুত্বপূর্ণ বিষয় কোনটি? মনে হয় অধিকাংশ ট্রেডারই বলবে মানি ম্যানেজমেন্টরে (Money Management)কথা। এমনকি বিশ্বের সেরা সেরা ট্রেডিং কৌশলও বা স্ট্রেটেজি আপনাকে খুব বেশি সাহায্য করতে পারবে না যদিনা আপনার কাছে সঠিক মানি ম্যানেজমেন্ট স্ট্রেটেজি থাকে। এই আর্টিকেলে আমরা ট্রেডিংয়ের মানি ম্যানেজমেন্ট উন্নয়নের ৬টি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে আলোচনা করব। ১. ট্রেড করার আগে প্রতি ট্রেডের রিস্ক সম্পর্কে জানুন (Before placing trade knows about Risk): আপনি প্রতি ট্রেডে সর্বোচ্চ কত ডলার লস করতে পারবেন? এটাকেই বলা হয় প্রতি ট্রেডের রিস্ক বা Risk Per Trade। খুব কম সংখ্যক ট্রেডারই আছেন যারা ট্রেড করার পূর্বে সম্ভাব্য লসের কথা বিবেচনায় আনেন। এটাই ট্রেডিংয়ের ক্ষেত্রে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ দৃষ্টিভঙ্গি যা পারে আপনার ট্রেডিং একাউন্ট জিরো হওয়া থেকে বাঁচাতে। অনেক ট্রেডার তার মানি ম্যানেজমেন্ট স্ট্রেটেজিতে প্রতি ট্রেডে সর্বচ্চ ২% বা তার কম রিস্ক নেওয়ার কথা বলে থাকেন। তবে নতুন ট্রেডারদের ক্ষেত্রে এই % যত কম হবে ততই ভাল। আপনার পজিশন সাইজের উপরই নির্ভর করে আপনার ট্রেডিং রিস্ক লেভেল। মনে করেন আপনার একাউন্টে ১০,০০০ ডলার ব্যালেন্স আছে এবং আপনি একটা নতুন ট্রেডের সুযোগ পেয়েছেন যেখানে আনুমানিক ৫০ পিপস রিস্ক নেওয়া নিরাপদ বলে আপনি মনে করেন, তাহলে ২% হিসাবে আপনার রিস্ক অংক হবে ২০০ ডলার এবং আপনার ট্রেডিং লট সাইজ হবে ০.৪ ($200 / 50 pips = $4)। আশাকরি বিষয়টি বুঝতে পেরেছেন। ২. সর্বদাই স্টপ লস (Stop Loss) ব্যবহার করতে হবে  (Always use stop loss): অধিকাংশ ট্রেডার স্টপ লস শুনলেই অনেকটা নেতিবাচক মনে করে থাকেন। প্রকৃতপক্ষে StopLoss হল এমন একটা উপায় যার মাধ্যমে আপনি আপনার ট্রেডিংয়ের কোন অনাকাংখিত লস হওয়া থেকে ট্রেডিং একাউন্টকে নিরাপদ রাখতে পারেন। তবে এমন অনেক মার্কেটে কন্ডিশন আছে (Flash Crush, High Volatile Move) যখন স্টপলস অর্ডার কার্যকরী নাও হতে পারে তবে এমনটা খুব কমই হয়ে থাকে। ট্রেডিং স্ট্রেটেজি অনুসারে বিভিন্ন ধরনের স্টপলস রয়েছে যেমন Volatility stops, Chart Stops কিন্তু সর্বদাই টার্গেট বেজ স্টপলস ব্যবহার করা উত্তম, যা মার্কেট এনালাইসিস করে সাপোর্ট এবং রেজিটেন্সে দেওয়া হয়ে থাকে এবং এই এনালাইসিস এর জন্য ট্রেডাররা ট্রেন্ডলাইন(Trend Line), চ্যনেল(Channel), চার্ট প্যটার্ন (Chart Pattern)ইত্যাদি ব্যবহার করতে পারে। কখনই স্টপলস অনুমানের উপর ভিত্তি করে বা পিপস এমাউন্ট এর উপর ভিত্তি করে হওয়া উচিন নয়। ৩. রিস্ক এবং রিওয়ার্ড রেশিও বিবেচনায় আনতে হবে (Consider Reward-To-Risk Ratios of Trades): শুধু স্টপলস ব্যবহার করলে হবে না, সাথে সাথে সঠিক জায়গায় ট্রেড ক্লোজ করার দক্ষতাও থাকা প্রয়োজন। ভুল জায়গায় টেক প্রফিট(TP)দিলেও সামগ্রিক ট্রেডিংয়ের ফলাফল খারাপ হতে পারে। অন্যদিকে সঠিক জায়গায় স্টপলস দিলে তা ট্রেডিংয়ের সামগ্রিক ফলাফল অনেক ভালো করতে সক্ষম। সুতরাং শুধু স্টপ লস নয় বরং সঠিক টেক প্রফিটও সফল ট্রেডিংয়ের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। টেক প্রফিট লেভেলও আপনার ট্রেডের রিস্ক এবং রিওয়ার্ড রেশিও অনেকটা নির্ধারন করে থাকে যা খুব স্বাভাবিকভাবে ট্রেডের তুলনামূলক ঝুঁকির সাথে সম্ভাব্য প্রফিটের একটা তুলনা করে থাকে। রিস্ক এবং রিওয়ার্ড রেশিও যদি ১:১ থাকে তাহলে আপনি যে পরিমান প্রফিট আশা করবেন ঠিক সেই পরিমান ঝুকি নিতেও ইচ্ছুক। অনুরুপভাবে ২:১, ১:২ (Risk: Reward)নির্ধারন করে নিতে হবে। ৪. লেভারেজ সঠিকভাবে ব্যবহার (Use Leverage wisely): অনেক ট্রেডার ফরেক্স মার্কেটের উপর অনেক বেশি আকৃষ্ট হয় এবং মনে করে থাকে এখানে খুব অল্প বিনিয়োগ করেই অনেক প্রফিট করা সম্ভব কারন এই মার্কেটে ব্রোকারগুলো অনেক লেভারেজ (Leverage) অফার করে থাকে। যদিও এই মার্কেটে ভালো প্রফিট করতে গেলে লেভারেজ (Leverage)অনেক গুরূত্বপূর্ণ কিন্তু খুব বেশি লেভারেজ হতে পারে আপনার একাউন্টের জন্য অনেক বেশি  ক্ষতিকর। সঠিক লেভারেজ ব্যবহার না করলে তা মানি ম্যনেজমেন্ট প্লানে প্রভাব ফেলতে পারে। আগেই বলা হয়েছে আপনার স্টপলস এর উপর ভিত্তি করে পজিশন সাইজ এবং লেভারেজ নির্ধারন করা উচিত যা পারে বড় ধরনের লস থেকে আপনাকে বাঁচাতে। ৫. ইমোশনের উপর ভিত্তি করে ট্রেড না দেওয়া (Don’t Trade Based on Emotions): নতুন ট্রেডারদের ট্রেডিংয়ের সবচেয়ে বড় ধরনের সমস্যার নাম হল Emotion। শুধুমাত্র ইমোশনের প্রভাবে ট্রেড করতে গিয়ে নতুন ট্রেডাররা প্রতিনিয়ত লস করে থাকে। বার বার স্টপলস মুভ করা, প্রফিটের ট্রেড হোল্ড না করা বরং লসের ট্রেড মাসের পর মাস ধরে রাখা, লস হলে তা মানতে না চাওয়া মেনে, মানি ম্যানেজমেন্ট রুলস হঠাৎ ব্রেক করা ফেলা, ওভার ট্রেড করা ইত্যাদি আরও অনেক কিছুই এই ইমোশনের প্রভাবে হয়ে থাকে। আপনার যদি নিজের এনালাইসিসের উপর Confidence থাকে তাহলে মার্কেটকে প্রমান করতে দিন যে আপনার এনালাইসিস সঠিক ছিল। মনে রাখতে হবে বার বার ইমোশনের প্রভাবে নিজের ট্রেডিং সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করা সফল ট্রেডিংয়ের পথে অনেক বড় বাধা। উচিত হবে একটি STREGHT FORWARD এবং লিখিত ট্রেডিং প্লান অনুসরন করা যার ভিতরে থাকবে আপনার ট্রেডিং স্ট্রেটেজি এবং মানি ম্যানেজমেন্ট প্রিন্সিপাল। তাহলে আস্থে আস্থে ইমোশনাল ট্রেডিং অনেকাংশে হ্রাস পাবে। ৬. প্রতিদিনের ট্রেডিং জার্নাল অনুসরণ করতে হবে এবং প্রতিনীয়ত শিখার মানসিকতা রাখতে হবে (Keep a Trading Journal and Learn along the Way): সঠিকভাবে ট্রেডিং জার্নাল অনুসরণ করলে এই ট্রেডিং জার্নালই আপনাকে আপনার ট্রেডিংয়ের দূর্বলতাগুলো খুব সহজেই বুঝতে সাহায্য করবে। মানি ম্যানেজমেন্টের দূর্বলদিকগুলো চলে আসবে আপনার চোখের সামনে, ট্রেডিংয়ের ভূলগুলোকে এনালাইসিস করে সেগুলো সংশোধনের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া অনেক সহজ হবে। নিজের ট্রেডিং জার্নাল প্রতি সপ্তাহে, মাসে এবং ৩ মাস পর পর এনালাইসিস করতে হবে। নিজের ট্রেডিংয়ের উন্নয়ন নিজেকেই পরিলক্ষিত করতে হবে। এভাবেই একজন লুজারই পরিনত হয় একজন প্রফেশনাল ট্রেডার।

238
Read More
অর্থনৈতিক সমস্যা সমাধানের জন্য নয় বরং সঠিক ট্রেড শেখাই হোক ট্রেডিংয়ের প্রধান উদ্দেশ্য
Jul 01 2019

অর্থনৈতিক সমস্যা সমাধানের জন্য নয় বরং সঠিক ট্রেড শেখাই হোক ট্রেডিংয়ের প্রধান উদ্দেশ্য

Created by: FxsuccessBD | ট্রেডিং সাইকোলজি |

5.0 (8 reviews)

প্রায় ৮ বছরের অভিজ্ঞতার আলোকে বলছি, অর্থনৈতিক সমস্যা সমাধানের জন্য নয় বরং নিজেকে একজন দক্ষ ট্রেডার হিসেবে তৈরি করাই হোক আপনার ট্রেডিংয়ের প্রধান লক্ষ। আমার এই উক্তিটি আপনার কাছে অদ্ভুত মনে হতে পারে বা আপনি আমার সাথে একমত নাও হতে পারেন কেননা দিন শেষে আমরা সবাই প্রফিটের জন্যই বিনিয়োগ করে থাকি। তবুও এই উক্তিটির সত্যতা এবং বাস্তবতা নিয়ে আমার বিন্দুমাত্র সন্দেহ নেই। বিভিন্ন সময়ে ট্রেডারের এবং বিনিয়োগকারীদের সাথে আমার বিভিন্ন বিষয়ে কথা হয়ে থাকে, যাদের অধিকাংশই এই মার্কেটে প্রথমে অংশগ্রহন করেছিলেন অধিক মুনফা লাভের আশায়। অনেকে আবার আমাকে বলেছে, “ভাইয়া আমি খুব অর্থনৈতিক সমস্যার মধ্যে আছি, আমার জন্য কিছু একটা করেন বা এমন কোন ট্রেডিং স্ট্রেটেজি শেয়ার করেন যাতে আমি এই সেকটর থেকে নিজের অর্থনৈতিক অবস্থার উন্নয়ন ঘটাতে পারি”। কথাগুলো শোনার পর নিজেকে খুব অসহায় লাগে কারন ট্রেডিং এমন একটা সেকটর যেখানে অর্থনৈতিক সমস্যা সমাধানের জন্য বিনিয়োগ করতে গেলে সমস্যা হ্রাস পাবে না বরং বৃদ্ধি পেতে পারে। লস করার পর অনেকে আবার ভাগ্যের উপর দোষারোপ করতে শুরু করে দেয়। আমাদের একটা বিষয় বুঝতে হবে, ভাগ্য কিন্তু আপনার কর্মেরই প্রতিফলন। SCOT তার এক উক্তিতে বলেছেন “ভাগ্য বলে কিছুই নেই, প্রত্যেকের চেষ্টা ও যত্নের উপর তা গড়ে উঠে”। ট্রেডিংয়ের ক্ষেত্রে কিন্তু এর বেতিক্রম নয়।   আপনি যদি ফরেক্স মার্কেটের চার্ট দেখেন তাহলে মনে হতে পারে এখানে অসংখ্য ট্রেডিংয়ের সুযোগ রয়েছে এবং এই মার্কেট থেকে নিজের অর্থনৈতিক প্রেক্ষাপট পরিবর্তন করা খুব কঠিন কিছু হবে না। বিষয়টি আসলেই কিছু ট্রেডারদের কাছে সহজ কিন্তু অধিকাংশের ট্রেডারের কাছে নয়। এখন প্রশ্ন হল, নতুন ট্রেডার বা বিনিয়োগকারীরা ফরেক্স মার্কেটকে এমন কেন মনে করে থাকে? আসলে এমনটি মনে হবার পেছনে যে কারনগুলো রয়েছে তার মধ্যে প্রধান কারণ হল ব্রোকার প্রদত্ত অধিক পরিমান লেভারেজ (Leverage) যা একজন স্বল্প বিনিয়োগকারিকে অধিক প্রফিট করার স্বপ্ন দেখায়। এটা সত্য যে ট্রেডিংয়ের ক্ষেত্রে লেভারেজ অনেক গুরুত্বপূর্ণ কিন্তু অধিক লেভারেজ আবার ধ্বংসেরও কারন হতে পারে। অধিক লেভারেজ থাকার করনে আপনি ব্রোকারগুলো থেকে খুব অল্প বিনিয়োগ করেই ট্রেড করার সুযোগ পাচ্ছেন যেমন মাত্র ১০ ডলার বিনিয়োগ করে ১:২০০০ লেভারেজ নিয়ে আপনি ট্রেড করতে পারেন যেখানে আপনার ১ ডালার হবে ২০০০ ডলারের সমান, তাহলে ১০ ডলার হচ্ছে ২০০০০ ডালারের সমান, মানে আপনি সর্বচ্চ ০.২০ লটে ট্রেড ওপেন করতে পারবেন। আপনি যদি একটা ট্রেড দেন ০.২ লটে এবং ট্রেডটি যদি ৫০ পিপস মুভ করে  তাহলে আপনার প্রফিট হবে ১০০ ডলার। বিষয়টি কিছুটা  অবাস্তব মনে হতে পারে কিন্তু এটাই ফরেক্সের ক্ষেত্রে চরম বাস্তবতা। এখন প্রশ্ন হল এটি কি ট্রেড হবে না Gambling? অভিজ্ঞতার আলোকে বলতে পারি, যারাই ফরেক্স মার্কেটে অধিক মুনাফার লোভে বিনিয়োগ করেছে তারাই খারাপ অবস্থার সম্মুখিন হয়েছে। কিন্তু যারা প্রকৃত শেখার মানসিকতা নিয়ে এসেছে তরাই ভালো করেছে। এটা এমন একটা মার্কেট যেখানে ট্রেড শিখতে শিখতেই ভালো করা যায়। যদি মানসিকতা থাকে ভালো করার তাহলে প্রধান ফোকাস চলে যাবে ট্রেডিং দক্ষতা উন্নয়নের দিকে, প্রফিট করার দিকে নয়। যদি আপনি নিজের সাথে কমিটমেন্ট করেন এই সেকটরে ভালো করার এবং যদি Passionate থাকেন তাহলে MONEY এমনিতেই আপনার কাছে চলে আসবে। আপনি কত ডলার প্রফিট করলেন তার থেকে বেশি গুরুত্বপূর্ণ হল সঠিক RISK REWARD মেনে নিয়ে কত পিপস প্রফিট করেছেন এটাই গুরুত্বপূর্ণ। একজন দক্ষ ফুটবল প্লেয়ার কখনই গোল এর দিকে ফোকাস করে না, বরং ফোকাস করে শুধু ভাল খেলার জন্য কারন সে জানে গোল তখনই হবে যখন সে প্রতিটা মুভ দক্ষতার সাথে করতে পারবে সুতরাং আসল দক্ষতার প্রকাশ ঘটে সেই প্রতিটা মুভের/ প্রতিটা পাচ মধ্যেই। লক্ষ নির্ধারন করে সামনের দিকে এগিয়ে যেতে হবে, ট্রেডিংয়ের প্রথম বছর আপনার টার্গেট কি? কখনও কি নিজেকে প্রশ্ন করেছেন? কোন কোন বিষয়ে দক্ষতা অর্জন করতে চান? আপনার কাছে কি কোন সুর্দিষ্ট লিস্ট আছে? যদি না থাকে তাহলে আজই করে ফেলুন। সফল ট্রেডার হওয়া অনেক দিনের পরিশ্রম, সাধনা এবং বার বার চেষ্টার ফসল। আপনার এই সফলতার যাত্রা পথে FXSUCCESSBD সর্বদাই আপনার পাশে আছে। 

141
Read More
এমন কি আছে যা শিখলে ফরেক্স মার্কেট আয়ত্তে আনা সম্ভব?
Jul 03 2019

এমন কি আছে যা শিখলে ফরেক্স মার্কেট আয়ত্তে আনা সম্ভব?

Created by: RAJ | মার্কেট এনালাইসিস |

5.0 (7 reviews)

এমন কি আছে যা শিখলে ফরেক্স মার্কেট আয়ত্তে আনা সম্ভব? আচ্ছা এমন কিছু কি আছে যা শিখলে ফরেক্স মার্কেটকে ভালোভাবে আয়ত্তে আনা সম্ভব হবে? এমন কিছু কি অসলেই আছে যা সঠিকভাবে শিখতে পারলে আমি বুঝতে পারব মার্কেটে কোথায় বাই এবং কোথায় সেল ট্রেড নিলে প্রফিট হবার সম্ভাবনা বেশি থাকবে? এ ধরনের প্রশ্ন প্রায়ই নতুন ট্রেডাররা অনেক আগ্রহ নিয়ে জিজ্ঞাসা করে থাকেন। হুম অবশ্যই আছে, যার মাধ্যমে আপনি মার্কেটের গতিবিধি বুঝতে পারবেন এবং আপনার ট্রেড সম্পর্কে সঠিক একটা সিদ্ধান্তে উপনীত হতে পারবেন। হুম, এটাই হল ক্যান্ডেলস্টিক এনালাইসিস এবং এর সিঠিক প্রয়োগ। বিশেষজ্ঞদের মতে ক্যান্ডেলস্টিক এনালাইসিস সঠিকভাবে জানতে এবং প্রয়োগ করতে পারলে ফরেক্স এবং স্টক মার্কেট এনালাইসিসের ৭০% জানা হয়ে যাবে। অনেকেই অনেক রকম ক্যান্ডেল প্যটার্ন সম্পর্কে জানেন কিন্তু এর সিঠিক প্রয়োগ খুব কম সংখ্যক ট্রেডারই জানেন। যা জানা সকল ট্রেডারদের জন্য অতীব জরুরী কেননা এই ক্যান্ডেলস্টিক প্যটার্ন এনালাইসেসর মাধ্যমে আপনি বুঝতে পারবেন মার্কেট সেন্টিমেন্ট বা Investor Sentiment সম্পর্কে এবং সঠিকভাবে প্রয়োগ করতে পারলেই পায়ে যাবেন অনেক কাঙ্ক্ষিত High Reliable Trade Set Up। আজকের আলোচনায় আমরা ক্যান্ডেলস্টিক প্যটার্ন এনালাইসেসর ৪টি গুরুত্বপূর্ণ কারণ সম্পর্কে জানব যা আপনাকে এটার প্রযোজনীয়তা বুঝতে সাহায্য করবে। তাহলে শুরু করা যাক। যে চারটি করনে আপনার ক্যান্ডেলস্টিক শেখা খুবই গুরুত্বপূর্ণ:   মার্কেটের গতিবিধির পর্যাপ্ত তথ্য পাওয়া সম্ভব: নিচের চিত্রে আপনি যদি বার চার্ট(BAR CHART) এবং ক্যান্ডেলস্টিক (Candlesticks Chart) চার্ট লক্ষ করেন তাহলে ২টা চার্টের পাথ্যক্য বুঝতে পারবেন। প্রাইস একশান এনালাইসিস (Price Action Analysis) এবং মার্কেট প্রোবাবিলিটি (Probabilit) এনালাইসিসের ক্ষেত্রে বার চাট এর চেয়ে ক্যান্ডেল চার্ট অনেক সহজ এবং কার্যকরি একটি পদ্ধতি। তাছাড়া তুলনামূলক কম পরিশ্রম এবং Practice করেই ক্যান্ডেল চার্ট আয়ত্তে আনা সম্ভব।   মার্কেট সাইকোলজি সাম্পর্কে সঠিক ধারনা পাওয়া যায়: ক্যান্ডেলস্টিক চার্টের মাধ্যমে আমারা খুব সহজ ভাবেই মার্কেটের যেকোন পরিবর্তন বুঝতে পারি এবং ট্রেডারদের সাইকোলজি জানতে পারি। নিচের চার্টে আমি ক্যান্ডেলস্টিকের ব্যসিক মার্কেট সেনটিমেন্ট (Sentiment) বোঝানোর চেষ্টা করেছি। মনে রাখতে হবে ক্যান্ডেল প্যাটার্নের গুরুত্বপূর্ন অংশ হলো CANDLE SHADOW বা PIN এবং এই শেডোই প্রকৃতপক্ষে মার্কেটে ট্রেডারদের বিভিন্ন সেন্টিমেন্ট প্রকাশ করে থাকে। যেগুলো সঠিকভাবে বিচার বিশ্লেষন করাই হলো প্রাইস একশন এনালাইসিস (Price Action Analysis)। পরবর্তিতে আমরা প্রাইস একশন ট্রেডিং স্ট্রেটেজি নিয়ে বিশদভাবে আলোচনা করব। ক্যান্ডেলস্টিক চার্ট বোঝা তুলনামূলক অনেক সহজ: অনেক সহজেই ক্যান্ডেল চার্ট বোঝা যায় যেখানে visually দেখা যায় মার্কেটের ইন্টারনাল Supply & Demand এর অবস্থান। তবে ক্যান্ডেলস্টিক চার্ট সাথে কিছু টেকনিক্যাল বিচার বিশ্লেষন করে নিলে অনেক ACCURATE সিগন্যাল পাওয়া যায় মার্কেট পরবর্তী মুভমেন্ট সম্পর্কে। প্রায় ২৫০ বছর ধরে পরিক্ষিত এবং ব্যবহৃত হয়ে আসছে: ক্যান্ডেল চার্ট ব্যবহার হয়ে আসছে পায় ২৫০ বছর ধরে। জাপানিজ এক চাল বিক্রেতা Homma Munehisa প্রথম এই চার্ট তৈরি এবং ব্যবহার করেন এবং ব্যপক সাফল্য পান। পরবর্তিতে এই চার্টের ব্যাপক প্রচলন হতে থাকে এবং বর্তমানে এই চার্টই স্টক এবং ফরেক্স মার্কেটের সবথেকে জনপ্রিয় চার্ট।  

136
Read More
ট্রেডিংয়ে লোভ নিয়ন্ত্রন করার কৌশল, পর্ব-২
Mar 27 2019

ট্রেডিংয়ে লোভ নিয়ন্ত্রন করার কৌশল, পর্ব-২

Created by: FxsuccessBD | ট্রেডিং সাইকোলজি |

5.0 (10 reviews)

মানুষ অভ্যাসের দাস তাই তার পূর্বের অভ্যাস বা অবেগগুলোকে সে খুব সহজেই ঝেড়ে ফেলতে পারে না। ফরেক্স ট্রেডিংয়ে লসের অন্যতম কারন হল এই আবেগগুলো এবং এগুলোর মধ্যে রাজার আসল দখল করে আছে "লোভ বা Greed"। তাই অভ্যাসগতভাবে লোভ সংবরন করা অনেক কষ্টকর কিন্তু অসম্ভব নয়। এই আর্টিক্যেলের মাধ্যমে আমি চেষ্টা করব বিষয়টির খুঁটিনাটি দিক আলোচনা করার এবং বিভন্ন মনস্তাত্বিক বিষয় তুলে ধরার মাধ্যমে লোভ সংবরন করার উপায় আলোচনা করব। প্রথমে জেনে নেওয়া যাক মানুষ কেন ফরেক্স ট্রেডিংয়ের ক্ষেত্রে লোভের কবলে পাড়ে? যেহেতু এই সেকটরে প্রফিট করার লিমিটেশন বা গন্ডি নেই তাই আমাদের মাঝে লোভ কাজ করাটা স্বভাবিক একটা বিষয়। বাংলাদেশের শেয়ার মার্কেটে দিনে সর্বচ্চ ১০% প্রফিট করা সম্ভব কিন্তু ফরেক্স মার্কেটে এমন কোন বিধিনিষেধ নেই। এখানে আপনি একদিনে একাউন্টের ১০০ গুনও করতে পারবেন যদি সুযোগ পান। তাই লোভ একটু বেশি কাজ করে থাকে। ট্রেডিংয়ের সঠিক নিয়ম কানুন এবং মানি ম্যানেজমেন্টের সঠিক কৌশল না জানার কারনে ট্রেডাররা লোভের সম্মুখিন হয়ে থাকে। যেমন মানি ম্যানেজমেন্টের নিয়ম বলতে প্রতি ট্রেডে সর্বচ্চ ২% রিস্ক নেওয়া উচিত এবং এর বেশি হলে একাউন্টের উপর  প্রভাব পড়তে পারে কিন্তু আপনি এটি না জানার করনে বেশি রিস্ক নিলেন এবং আপানার একাউন্ট ঝুঁকির মুখে পড়ল। এটা হল মূলত সঠিক নিয়ম কানুন না জানার কারণে। অনুশোচনা করা আরও একটি কারন যার ফলে ট্রেডাররা হতাশ হয়ে পড়ে এবং নিজের ভুলের উপর বার বার আঙ্গুল তুলে  এবং ভিতরে ভিতরে পুড়তে থাকে। অনেক সময় ট্রেডাররা ট্রেড ক্লোজ করার পরও অনুশোচনা করে। ইশ্ ট্রেডটা যদি এখনও ওপেন থাকত তাহলে আরও ১০০ ডলার বেশি প্রফিট হতো। আসলে এই ধরনের মানসিকতাও লোভের জন্ম দিয়ে থাকে। এক বন্ধু তার বন্ধুকে বলতেছে দোস্ত আমি আজকে ১০০০ ডলার প্রফিট করলাম, তুই কত করলি? বন্ধু উত্তরে বলতেছে কি আর বলব দোস্ত আমিতো এতো প্রফিট করতে পরি নাই। তখন বন্ধু হালকা হিট দিয়ে বলল , কি য়ে করিস আমার মনে হয় তোকে দিয়ে ট্রেড হবে না।  অন্যদিকে বন্ধু বাড়িতে এসে মন খারাপ করে বসে আছে আর নিজে নিজে ভাবতেছে, আমাকে দিয়ে কি আসলেই ট্রেড হবে না।তখন যে আরও বেশি রিস্ক নিয়ে ট্রেড করার চেষ্টা করে এবং লস করে ফেলে। এভাবে একে অন্যের সাথে প্রতিযোগিতার করণেও মানুষের মধ্যে লোভ জন্ম হয়ে থাকে। অনেক নতুন ট্রেডার আছে যারা অনেক সময় আন্দাজে ট্রেড দিয়ে খুব ভালো প্রফিট করে ফেলে এবং মনে করতে থাকে বার বার তা করতে পারবে। এটাও লোভের জন্ম দিয়ে থাকে। অধিক সময় ট্রেডিং চার্ট দেখতে থাকলেও অনেক সময় ট্রেড বেশি নিতে ইচ্ছা করে এবং ওভার ট্রেড হতে পারে। এই ওভার ট্রেড লোভের আরও একটা  বড় করণ। যেভাবে আমরা লোভকে সংবরন করতে পারব: আগে আমরা জেনেছি আমাদের ফরেক্স ট্রেডিংয়ের ক্ষেত্রে লোভ কাজ করার কারনগুলো সম্পর্কে। এখন আমারা জনব যে কিভাবে আমরা এই লোভ নিয়ন্ত্রন করতে পারি। যেসব কারণগুলো আমাদের মধ্যে লোভ সৃষ্টি করতে পারে সেই করনগুলো সম্পর্কে আমাদের সঠিক এবং পর্যাপ্ত ধারণা থাকতে হবে। এর ফরে আমার সঠিক পদক্ষেপ গ্রহন করতে পারব। সঠিক নিয়মে ট্রেড করতে হবে এবং রিস্কলেভেলকে এবং মানি ম্যনেজমেন্টকে সঠিক নিয়মে ফলো করতে হবে। লস করার পরে নয় বরং লস করার আগে সতর্কতার সাথে ট্রেড করতে হবে এবং নিজের সাথে নিজের Commitment ঠিক রাখতে হবে। লাইভ মার্কেটে ট্রেড করার আগে সঠিকভাবে ট্রেড শিখে নিন।বলার অপেক্ষা রাখে না যে এটা অনেক বড় একটা সেকটর যার উপর ৪ বছরে Graduation আছে এবং ২ বছরের Master Degree আছে।তাই দু্‌ই দিন ডেমো ট্রেড করে লাইভ মার্কেটে ট্রেড করা বোকামি ছাড়া আর কিছুই নয়।ফরেক্সের ঝুঁকির দিকগুলোকে জানতে হবে, বুঝতে হবে যেসব ভুলের কারনে তিল তিল করে গড়ে তোলা ট্রেডিং ক্যরিয়ার ঝুকির মধ্যে পড়তে পারে। ট্রেডিংকে একমাত্র ইনকাম সোর্স না নিয়ে বরং পার্ট-টাইম নেওয়া উচিত। যত বেশি প্রফিট করতে চাইবেন ততো বেশি লোভ তৈরি হবে। সুতরাং যতদিন পর্যন্ত প্রফেশনাল বা প্রো লেভেল ট্রেডার হচ্ছেন ততো দিন পর্যন্ত ফুলটাইম ট্রেড করা থেকে বিরত থাকুন। নিজেকে ডিসিপ্লিনের মধ্যে রাখতে হবে। নিয়মের মধ্যে ট্রেড দিতে হবে এবং ক্লোজ করতে হবে। ট্রেড নিয়ে অনুশোচনা করা যাবে না। ট্রেড ভুল হবে না এটা চিন্তা করাও একটা ভুল সুতরাং ভুল থেকে শিক্ষা নিয়ে সামনে এগিয়ে যেতে হবে। অন্যরা কি করল, কতো ডলার প্রফিট করল এগুলো দেখা থেকে বিরত থাকতে হবে। অন্যের এনালাইসিস দেখে ট্রেড নেওয়া যাবে না তবে অন্যের এনালাইসিসি দেখে নিজের এনালাইসিস মিল করে যদি মনে হয় ট্রেড নেওয়া যায় তাহলে ট্রেড নেওয়া যেতে পারে। বাস্তববাদি চিন্তা করতে হবে, নিজেকে দ্রুত বড়লোক করার চেষ্টা করা থেকে বিরত রাখতে হবে। বছরের সব মাসেই সমান প্রফিট হবে না বা মার্কেট সমান থাকবে না। তাই নিজেকে বাস্তব চিন্তা করতে হবে এবং ঝুঁকিপূর্ণ মার্কেট থেকে নিজেকে দূরে রাখতে হবে। মোটিভেশনাল বই পড়তে হবে প্রতিদিন কমপক্ষে ১০ পেজ করে বিশেষ করে যখন মন খারাপ লাগবে তখন। বই গুলোর মধ্যে বিশেষ করে You can win, The power of your subconscious Mind, Think and Grow Rich ইত্যাদি।

277
Read More
ট্রেডিংয়ে লোভ নিয়ন্ত্রন করার কৌশল, পর্ব-১
Mar 27 2019

ট্রেডিংয়ে লোভ নিয়ন্ত্রন করার কৌশল, পর্ব-১

Created by: FxsuccessBD | ট্রেডিং সাইকোলজি |

5.0 (16 reviews)

শুধুমাত্র ফরেক্স ট্রেডিং নয় জীবনের সকল স্তরে সফলতার জন্য প্রয়োজন লোভ থেকে দূরে থাকা। যারা লোভকে জয় করতে পারবে তাদের জন্য দীর্ঘস্থায়ী সফলতা খুব কঠিন কিছু না। ফরেক্সের ক্ষেত্রে ট্রেডারদের দ্রত বড়লোক হবার প্রবনতা লক্ষ করা যায়, যেহেতু এটি একটি অর্থ-নির্ভর ব্যবসা তাই লোভ একটু হলেও বেশি কাজ করে থাকে। অল্প বিনিয়োগ করে বেশি প্রফিট কারার প্রবনতা প্রায় সকল নতুন ট্রেডারদের মধ্যে লক্ষ করা যায়। শুধু নতুনদের কথা বললে ভুল হবে, অনেক প্রোফেশনাল ট্রেডারাও অনেক সময় এই লোভের ফাঁদে পড়ে যায় এবং অনেক কষ্টে অর্জিত সফলতা বিনষ্ট করে ফেলে। একটা ট্রেডে লস হলে কিভাবে খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে সেই লস-কে রিকভার করা যায়, কিভাবে অল্প সময়ের মধ্যে অধিক প্রফিট করা যায়, এই সকল চিন্তাভাবনা সাধারণত এই লোভের করনেই হয়ে থাকে। সফল ট্রেডার হতে হলে এই লোভকে জয় করতে হবে এবং লোভের ওপর নিয়ন্ত্রন করা শিখতে হবে। আজকের আর্টিকেলে আমরা এই লোভ নিয়েই বিশদ আলোচনার করব এবং জানার চেষ্ট করব লোভ নিয়ন্ত্রন করার বিভিন্ন পদ্ধতি সম্পর্কে। একটা বিষয় আগে জানতে হবে যে মানুষ কেন লোভের শিকার হয়। অনেকে অনেক ভাবে বিষয়টি ব্যখ্যা করতে পারে। কিন্তু এখানে আমি আমর নিজস্ব মাতামত প্রকাশ করব এবং শেয়ার করার চেষ্টা করব আমার প্রায় ৮ বছরে ট্রেডিং অভিজ্ঞতার আলোকে। মানুষের যখন চাহিদা বেড়ে যায় তখন মানুষ চায় অতি দ্রুত কিছু একটা করতে যাতে সে তার চাহিদা এবং যোগানের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে পারে। সে তখন তার প্রচলিত ধারার বিপরীতে গিয়ে কিছু একটা করতে চায়, নিয়ে নেয় অধিক ঝুকি যেটা পরবর্তিতে হয়ে ওঠে লসের করন। আমরা দেখেছি অনেক প্রতিষ্ঠানে কর্মচারীরা  ওভারটাইম ডিউটি করে থাকে কন্তু কেন করে? অবশ্যই প্রয়োজন বেশি বা চাহিদা বেশি থাকার কারনে, তাই নয় কি? ঠিক তেমনই যার জীবনে যত বেশি চাহিদা তার প্রাপ্তির আশাও ঠিক ততো বেশি থাকে। অনেকের আবার প্রয়োজন খুব একটা না হলেও ছয় রিপুর প্রভাবে বশীভুত হয়ে লোভের কবলে পড়ে যান। জীবনে খুব দ্রুত কিছু একটা করে ফেলে, কোন একটা স্বপ্ন পূরণ করা, পরিবারের আপনজনের জন্য কিছু একটা করা, সমাজের বা দেশের জন্য কিছু একটা করা ইত্যাদির চিন্তা করেও মানুষ তার জীবনে খুর দ্রত কিছু একটা করতে চায়। এর ফলে মানুষের ভিতর আকাংখা জন্ম হয় এবং কিছু পাওয়ার জন্য মন ব্যকুল হয়ে যায়। আমি আমার লেখনীতে কখনই আকাংখাকে লোভ হিসাবে আখ্যায়িত করতে চাই না কিন্তু অতী উচ্চাকাংক্ষা যে লোভের জন্ম দেয় এ বিষয়ে আমার কোন সন্দেহ নেই। অনেকে বলে ভাই আমি আমার জন্য জীবনে কিছু চাই না, আমি শুধু আমার পরিবারের সুখের কথা চিন্তা করি,, কাথাগুলো ভালো শোনালেও এগুলোও মানুষের মধ্যে আকাংখার জন্ম দেয় যেটা অনেকসময় চাওয়া এবং পাওয়ার মধ্যে একটা দুরত্ব স্থাপন করে থাকে। আপনি আপনার জীবনে কি চান এটা বড় বিষয় না বরং আপনি কিভাবে তা অর্জন করতে চান সেটাই বড় বিষয়। প্রচলিত ধারার চেয়ে যখন আপনি বেশি কিছু করতে যাবেন বা পেতে যাবেন তখনই লোভের সূত্রপাত হয় এবং অনাকাংক্ষিত ফলাফল চলে আসতে পারে। আইজাক নিউটন তার গতীর তৃতীয় সূত্রে বলেছেন.. প্রত্যেক ক্রিয়ারই সমান ও বিপরীত প্রতিক্রিয়া আছে । যেটা জীবনের সকল পর্যায়ে প্রমানিত এবং কার্যকরী। ফরেক্স ট্রেডিংয়ের ক্ষেত্রে এই বিষয়টা খুবই গুরুত্বপূর্ন। এই সেকটরে আপনার ইনপুট এবং আউটপুটের একটা মিল থাকতে হবে যা না হলে আপনাকে অনেক খারপ পরিস্থিতির শীকার হতে হবে আজ অথবা কাল। আপনি কি সঠিকভাবে ট্রেডের উপর পড়াশুনা করছেনে? আপনার কত % প্রফিটের চাহিদা আছে? ফরেক্স ট্রেডিংকে কি আপনি একমাত্র ইনকাম সোর্স করতে চান? আপনার কি রিস্ক ম্যনেজমেন্ট বা মানি ম্যনেজমেন্টের কোন সুনির্দিস্ট স্ট্রেটেজি মেনে চলেন? অপনি কি আপনার ইমোশনগুলোকে সঠিকভাবে নিয়ন্ত্রন করতে পারেন? উপরের প্রশ্নগুলোর সঠিক এবং যুক্তিসংগত উত্তর ছাড়া এই সেকটরে ভালো কিছু আশা করা মিথ্যা স্বপ্ন ছাড়া আর কিছুই না। মনে রাখাতে হবে ফরেক্স একটা ব্যবসা, কোন GAMBLING বা জুয়ার আসর নয়। এখানে টিকে থাকতে হলে আপানাকে ব্যবসায়ীদের মোতই চিন্তা ভাবনা করতে হবে, মিল রাখতে হবে আপানার চাওয়া ও পাওয়ার মধ্যে। কথাটা অপ্রিয় হলেও সত্য যে অনেক ট্রেডার ফরেক্স ট্রেডিংকে একটা দ্রুত বড়লোক হবার মাধ্যম হিসাবে মনে করে থাকে এবং এই চিন্তা তখনই তার মধ্যে আসে যখন এই সেকটর সম্পর্কে তার সঠিক ধারনা  থাকে না অথবা অন্যের কথায় প্রভাবিত হয়ে ট্রেড করে থাকে। কথাটি মিথ্যা নয়, প্রায় ৯৫% ট্রেডার এই সেকটরে লসের শিকার হয় এবং খুব কম ট্রেডারই আছেন যারা এই সেকটরে দীর্ঘমেয়াদীভাবে লাভোবান হয়েছেন এর হচ্ছে। আর যারা হয়েছেন তারা তাদের লোভ কে সংবরন করতে শিখেছেন। আপনি যদি খুব দ্রুত বড়লোক হবার উদ্দেশ্যে এই সেকটরে এসে থাকেন তাহলে আপনি আজ অথবা কাল আপনার আসল পুজি পর্যন্ত হারিয়ে ফেলবেন,, প্রফিটতো অনেক পরের কথা।  

272
Read More

TRADING SESSION

sydneySydeny Closed
tokyoTokyo Closed
londonLondon
Closed
newyorkNew York
Closing

Recent Market Analysis

  • EUR/USD FINALLY BOUNCED

    EUR/USD FINALLY BOUNCED

    EUR/USD current rise seems to be done near 1.1279 or 1.1303 for a retracement towards 1.1254 - 1.1241 regions.   Ex-High: 1.1280 Ex-Low:  1.1206   Supports and Resistance levels: Support 1:  1.1228                                   Supports 2: 1.1179 Resistance 1:   1.1303                             Resistances 2: 1.1329 Pivot:  1.1254  

    47 16 hours ago

  • EUR/USD BEARS ARE STILL IN CONTROL

    EUR/USD BEARS ARE STILL IN CONTROL

    EUR/USD must test 1.1239 regions after which a selloff down to 1.1205 or comprehensive to 1.1186 regions is accepted.   Ex-High: 1.1234 Ex-Low:  1.1200   Supports and Resistance levels: Support 1:  1.1205                                   Supports 2: 1.1186 Resistance 1:   1.1238                             Resistances 2: 1.1253 Pivot:  1.1219  

    48 1 day ago

  • EUR/USD MUST POP UP TO 1.1237

    EUR/USD MUST POP UP TO 1.1237

    EUR/USD should explode up towards 1.1237 or 1.1249 this bullish scenario would be damaged if 1.1206 - 1.1187 zone is broken, a severe break down could then happen.   Ex-High: 1.1264 Ex-Low:  1.1202   Supports and Resistance levels: Support 1:  1.1187                                   Supports 2: 1.1164 Resistance 1:   1.1249                             Resistances 2: 1.1287 Pivot:  1.1225  

    66 2 days ago

  • USD/JPY MIGHT DRIFT DOWN FOR A BOUNCE

    USD/JPY MIGHT DRIFT DOWN FOR A BOUNCE

    USD/JPY might meet resistance in 107.90 - 107.93 regions for a flow down to 107.76 regions, following which bounce to 108.07 is expected.   Ex-High: 108.11 Ex-Low:  107.80   Supports and Resistance levels: Support 1:  107.77                                   Supports 2: 107.63 Resistance 1:   108.08                             Resistances 2: 108.25 Pivot:  107.94  

    64 3 days ago

  • EUR/USD MIGHT BOUNCE FROM 1.1234

    EUR/USD MIGHT BOUNCE FROM 1.1234

    EUR/USD decline must be supported around 1.1246 - 1.1234 regions for rally to above 1.1277. A clear break of 1.1234 will damage this accepted rally.   Ex-High: 1.1284 Ex-Low:  1.1253   Supports and Resistance levels: Support 1:  1.1246                                   Supports 2: 1.1234 Resistance 1:   1.1277                             Resistances 2: 1.1296 Pivot:  1.1265  

    72 3 days ago

Advertisement

Market Summary

Economic Calender

Broker Section
SOCIAL NETWORKS :
SOCIAL NETWORKS :